ওয়ালটন-সাউথ জোনের রোমাঞ্চ ছড়ানো ড্র

প্রকাশ: ২০২০-০২-১৭ ৯:২৮:৪৪ এএম
ক্রীড়া ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের তৃতীয় রাউন্ডে বিসিবি সাউথ জোনের বিপক্ষে রোমাঞ্চ ছড়িয়ে ড্র করেছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। ওয়ালটনের ছুড়ে দেওয়া ৫০৭ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩৮৬ রান তুলে দিন শেষ করে সাউথ জোন। তাতে ড্র হয় ম্যাচটি।

৪ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান তুলে তৃতীয় দিন শেষ করা সাউথ জোন আজ চতুর্থ দিনে আবার ব্যাট করতে নামে। শেষ দিনে জিততে ৯০ ওভারে সাউথ জোনের প্রয়োজন ছিল ৩৪৮ রান। আর ওয়ালটনের প্রয়োজন ছিল ৬ উইকেট। ওয়ালটন ৫টি উইকেট নিতে পারলেও জয়ের দেখা পায়নি।

প্রথম সেশন ও দ্বিতীয় সেশনে দারুণ খেলে সাউথ জোন। দ্বিতীয় সেশনের শেষ দিকে ও তৃতীয় সেশনে বল হাতে লড়াই জমিয়ে তোলে ওয়ালটন। তুলে নেয় সাউথ জোনের ৯টি উইকেট। কিন্তু শেষ উইকেটে শফিউল ইসলাম ও ফরহাদ রেজা দিন শেষ করে আসেন।

ব্যাট হাতে ১৩৩ রান করেন সাউথ জোনের শামসুর রহমান। নাইটওয়াচম্যান নাসুম আহমেদ করেন ৮৫ রান। বল হাতে মেহেদী হাসান মিরাজ ৪টি উইকেট নেন। ৩টি উইকেট নেন শুভাগত হোম চৌধুরী। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

ওয়ালটন : ২৩৫/১০ ও ৩৮৫/৮ ডিক্লে.

সাউথ জোন : ১১৪/৪ ডিক্লে. ও ৩৮৬/৯ (১৪৪ ওভারে)।

ফল : ড্র।

নবম উইকেট হারাল সাউথ জোন : শুভাগত হোম চৌধুরী তার তৃতীয় শিকারে পরিণত করেছেন আব্দুর রাজ্জাককে। তাতে শেষ বিকেলে এসে জয়টাও হাতের নাগালে চলে আসছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের। ৭ বলে ৪ রান করে হোমের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে বিদায় নিয়েছেন অভিজ্ঞ রাজ্জাক। জিততে ১ উইকেট প্রয়োজন টিম ওয়ালটনের। 

নাসুমের বিদায়ে জয়ের সুবাস পাচ্ছে ওয়ালটন : চতুর্থ উইকেট হারানোর পর নাইটওয়াচম্যান হিসেবে মাঠে নামেন নাসুম আহমেদ। এরপর শামসুর রহমানের সাথে ১৩৯ রানের জুটি গড়েন পঞ্চম উইকেটে। শামসুর রহমান, নুরুল হাসান সোহান ও মাহেদী হাসান ফিরলেও তিনি থাকেন অবিচল। ২৪৬ বল খেলে ৯ চার ও ১ ছক্কায় ৮৫ রান করে যান। ৯ ওভারে জিততে সাউথ জোনের প্রয়োজন ১৩৫ রান। আর ওয়ালটনের প্রয়োজন ২ উইকেট। 

নাসুম-রেজার প্রতিরোধ : দ্রুত দুটি উইকেট হারানোর পর প্রতিরোধ গড়েছেন নাসুম আহমেদ ও ফরহাদ রেজা। তারা দুজন ইতিমধ্যে ১৬.৪ ওভার খেলে ৪০ রান সংগ্রহ করেছেন অষ্টম উইকেট জুটিতে। নাসুম ২৪১ বল খেলে ৮৫ রানে ও রেজা ৪৮ বল খেলে ১৪ রানে অপরাজিত আছেন। 

সপ্তম উইকেটের পতন : চা বিরতি থেকে ফিরে এসেই উইকেট হারিয়েছে সাউথ জোন। ফিরে গেছেন মাহেদী হাসান। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে স্ট্যাম্পড হন মাহেদী। ৪টি রান আসে তার ব্যাট থেকে। জিততে সাউথ জোনের প্রয়োজন ২৭.২ ওভারে ১৮৪ রান। আর ওয়ালটনের প্রয়োজন ৩টি উইকেট। 

সোহানকে ফিরিয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে ওয়ালটন : শামসুর রহমান ফেরার পর ফিরলেন নুরুল হাসান সোহানও। দলীয় ৩১৭ রানের মাথায় তাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন শুভাগত হোম চৌধুরী। ২৯ বল খেলে ৮ রান করে যান তিনি। সোহান আউট হওয়ার মধ্য দিয়ে ম্যাচের নাটাই ওয়ালটনের হাতে চলে গেল। এরপর যারা আছেন তারা সবাই বোলার। তাদের নিয়ে শেষ সেশনের ২৯টি ওভার পার করতে পারে কিনা সাউথ জোন দেখার বিষয়। 

১৩৯ রানের জুটি ভাঙলেন মিরাজ : ১৫১ রান থেকে দলের হাল ধরেন শামসুর রহমান ও নাসুম আহমেদ। তারা দুজন ৫৫ ওভার অবিচ্ছিন্ন থেকে ১৩৯ রানের জুটি গড়েন। অবশেষে তাদের বিচ্ছিন্ন করতে পেরেছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। দলীয় ২৯০ রানের মাথায় মেহেদী হাসান মিরাজের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে যান শামসুর। ২৩২ মিনিট ক্রিজে থেকে, ২৩০ বল মোকাবেলা করে ১৮টি চার ও ১ ছক্কায় ১৩৩ রান করে যান তিনি। তার আউটে স্বস্তি ফিরেছে ওয়ালটন শিবিরে। 

শামসুরের ২০তম সেঞ্চুরি : ৮৮ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে গিয়েছিলেন শামসুর রহমান। ফিরে এসে তুলে নিয়েছেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের ২০তম সেঞ্চুরি। মেহেদী হাসান মিরাজের করা ৯১তম ওভারে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৯৬ থেকে ১০০ রানে পৌঁছান শামসুর। ১৭৯ বল খেলে ১৪টি চার ও ১ ছক্কায় তিন অঙ্কের ম্যাজিক্যাল ফিগারে পৌঁছান তিনি। তার শতরানের ইনিংসে ভর করে সাউথ জোনের দলীয় সংগ্রহ ২৫০ ছাড়িয়েছে। জিততে এখনো প্রয়োজন ২৫৬ রান।

মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত সাউথ জোন ২৩১/৪ : দারুণ একটি সেশন পার করেছে বিসিবি সাউথ জোন। শেষ দিনের প্রথম সেশনে কোনো উইকেট হারায়নি তারা। ৫০৭ রান তাড়া করতে নেমে ১৫১ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসা সাউথ জোন শামসুর রহমান ও নাসুম আহমেদের ব্যাটে লড়ছে। তারা দুজন ইতিমধ্যে পঞ্চম উইকেটে ৮০ রান সংগ্রহ করেছেন। শামসুরের ৮৮ ও নাসুমের ১০৬ বলে করা ২৮ রানে ভর করে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৩১ রান তুলে মধ্যাহ্ন বিরতিতে গিয়েছে সাউথ জোন। জিততে ৫৮ ওভারে সাউথ জোনের প্রয়োজন ২৭৬ রান। আর ওয়ালটনের প্রয়োজন ৬টি উইকেট। 

শামসুর-নাসুমে এগোচ্ছে সাউথ জোন : ১৫১ রানের মাথায় চতুর্থ উইকেট হারিয়েছিল সাউথ জোন। ১৫৯ রান তুলে দিন শেষ করেছিল তারা। আজ সোমবার চতুর্থ ও শেষ দিনে সাউথ জোনকে টানছেন শামসুর রহমান শুভ ও নাসুম আহমেদ। তারা দুজন ইতিমধ্যে ৬৩ রানের জুটি গড়েছেন। তাদের ব্যাটে ভর করে দলীয় সংগ্রহ ২০০ পেরিয়েছে সাউথ জোনের। শামসুর ৭৬ ও নাসুম ২৫ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। 

সতর্ক শুরু সাউথ জোনের : লক্ষ্য অনেক বড়। সেই লক্ষ্য তাড়া করে জেতাটা কঠিন। তার উপর হাতে আছে ৬ উইকেট। স্বীকৃত ব্যাটসম্যানের সংখ্যা কম।টেল এন্ডারদের নিয়ে এই ম্যাচ জেতা কঠিন। সেটা সাউথ জোনের সবাই জানে। তাইতো আজ সোমবার সকালের সেশনে বেশ সতর্ক ব্যাটিং করছে তারা। আগের দিন ৪৪ রান নিয়ে অপরাজিত ব্যাটসম্যান শামসুর রহমান তুলে নিয়েছেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের ৩৮তম ফিফটি। মেহেদী হাসান মিরাজের করা ৫৭তম ওভারের প্রথম বলে ১ রান নিয়ে ফিফটি পূর্ণ করেন তিনি। ৭২ বলে ৮ চারে করেন এই ৫০ রান। তাকে দারুণ সঙ্গে দিচ্ছেন বোলার নাসুম আহমেদ। তিনি ৪৪ বল খেলে করেছেন ১০ রান!

আগের দুই রাউন্ড থেকে ১৬.৩৯ পয়েন্ট সংগ্রহ করে সাউথ জোন রয়েছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। আর ৯.৫ পয়েন্ট নিয়ে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

 

ঢাকা/আমিনুল


     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

টেলিভিশন ও হইচইয়ে জয়ার ‘কণ্ঠ’

২০২০-০৪-০৫ ১:১৯:১৫ পিএম

শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধে চিঠি

২০২০-০৪-০৫ ১২:১৯:৪৭ পিএম

‘গুজবের শেষ পরিণতি গজব’

২০২০-০৪-০৫ ১২:১৯:০৫ পিএম

‘মরলেও কি টাকা কবরে নিয়ে যাবেন?’

২০২০-০৪-০৫ ১২:১৫:৪০ পিএম