বাংলাদেশ-ভারত সাংবাদিকদের ক্রিকেটে সেরা ব্যাটসম্যান ইয়াসিন

প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৮ ১০:৩৫:২৮ পিএম
ইন্দোর থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক | রাইজিংবিডি.কম

আলোচনা শুরু হয়েছিল ইন্দোর টেস্টের তৃতীয় দিন থেকে।  বাংলাদেশ তখন ভারতের বিপক্ষে নিশ্চিত পরাজয়ের সামনে।  তিন দিনেই ম্যাচ শেষ।  দুদিন ইন্দোরেই কাটাতে হবে বাংলাদেশ ও ভারতীয় সাংবাদিকদের।

কারণ দলের বিমানের টিকিট কাটা ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত।  দুদিন কিভাবে কাজে লাগানো যায়? আলোচনার পর সিদ্ধান্ত হলো দুই দেশের সাংবাদিকদের একটা ম্যাচ আয়োজন করা যায়।  আয়োজক মধ্য প্রদ্বেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েসন।  একদিন পর অর্থ্যাৎ ইন্দোর টেস্টের পঞ্চম দিন ম্যাচ।

সে কী আয়োজন!

দুই দলের টিম বাস প্রস্তুত হোলকার স্টেডিয়ামের বাইরে।  একই সঙ্গে যাত্রা শুরু। গন্তব্য এমরাল্ড হাইটস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল।  শহরের একটু বাইরে প্রায় একশ একর জায়গা জুড়ে অবস্থিত ভারতের অন্যতম সেরা এ স্কুলটি।  স্কুলে ঢুকতেই চোখ ছানাবড়া।  এ যেন কোনো স্কুল নয়, যেন স্বপ্নপুরী।  বিশাল গেটের ভেতরে ঢুকতেই ছোট্ট সবুজের গালিচা।  স্কুলের ছেলে-মেয়েরা গোলাপ হাতে দাঁড়িয়ে দুই দেশের সাংবাদিকদের বরণে।  এরপর স্কুলের ভেতরে ঢোকা আর মুগ্ধ হওয়া।  কি নেই সেখানে।  বিশাল লন।  চোখ যেদিকে যায় সেদিকেই আটকে যায়। ক্লাসরুম আর গোটা কয়েক বিল্ডিং পেরিয়ে শুরু কিশোর-কিশোরীদের প্লে গ্রাউন্ড।

ক্রিকেট মাঠ আছে দুটি।  ফুটবল তিনটি।  নিয়মিত ভারতের রঞ্জী ট্রফির ম্যাচ হয় ক্রিকেট মাঠগুলোতে। বাস্কেটবল, হকি, ব্যাডমিন্টন, টেনিস, স্কেটিং, শ্যুাটিংয়ের জন্য পৃথক পৃথক জায়গা।  সুইমিংপুল, জিম ছাড়া তো এখানে চলেই না।  আছে ইনডোর গেমসও।  বোর্ডিং এবং ডে স্কুল মিলিয়ে এখানে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা চার হাজার।  নার্সারী থেকে ক্লাস টুয়েলভ পর্যন্ত পড়াশোনার ব্যবস্থা। 

এমন পরিবেশ বড় হওয়া প্রত্যেকটি কিশোর-কিশোরী কতটা প্রাণবন্ত তা বোঝা গেল গেম টিমার শ্রেয়াশের কন্ঠে,‘ওরা এখানে এসে খেলার ফাঁকে পড়াশোনা করে। ’ কথাটা বুঝতে সময় লাগছিল।  তিনি আবার বলেন,‘ওরা এখানে দিনের শুরুতে নিজেদের শরীর ঝালিয়ে নেয়। এরপর পড়াশোনা। যখন যেটা করতে মন চায় সেটা করে। কেউ ওদের আটকায় না। কেউ ওদের বকা ঝকা করে না।  এখানে প্রত্যেকটি ছাত্র-ছাত্রী আমাদের সন্তান। ’ এমরাল্ড হাইটস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ইন্দোর ও মধ্য প্রদ্বেশের সেরা স্কুলের খেতাব জিতেছে।  এডুকেশন টুডের মতে এটি ভারতের সেরা স্কুল।

বাংলাদেশ ও ভারতের সাংবাদিকদের ম্যাচ আয়োজন হলো শুরুর ক্রিকেট মাঠে।  মাঠের সীমানা এবং সার্কেল এতো সুন্দর করে সাজানো ছিল মনে হচ্ছিল আন্তর্জাতিক ম্যাচ।  আম্পায়ারদের উপস্থিতিতে টস হয়।  টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ভারতের সাংবাদিক দলটি।  ১০ ওভারের ম্যাচ।  আগে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে ১১০ রান তুলে দলটি।  বাংলাদেশ দলের বর্ষণ কবীর দুটি এবং মোহাম্মদ ইশাম নেন এক উইকেট।

জবাবে রাইজিংবিডির ক্রীড়া প্রতিবেদক ইয়াসিন হাসানের ঝড়ো শুরুর পরও বাংলাদেশের দলটি ম্যাচ হেরে যায় ২২ রানে। ইয়াসিন মাত্র ১৫ বলে ৩৬ রানের ইনিংস খেলেন।  ৫টি ছক্কায় সাজান নিজের ইনিংসটি।  শেষ দিকে ভুবন ৩ ছক্কা ও ১ চারে চেষ্টা চালালেও লক্ষ্য ছুঁতে পারেনি।  ম্যাচের সেরা ব্যাটসম্যান নির্বাচিত হন রাইজিংবিডির প্রতিবেদক ইয়াসিন।

নির্মল পরিবেশে, অসাধারণ আয়োজনে, সম্প্রীতি ও ভাতৃদ্বয়ের মেলবন্ধনে ক্রিকেট লেখিয়ে দুই দেশের সাংবাদিকরা মেতেছিলেন ক্রিকেট আনন্দে।  স্বপ্নপুরীতে পাওয়া প্রত্যেকটি ভালোবাসার মুহূর্ত হৃদয়ে থাকবে অনন্তকাল।


ইন্দোর/ইয়াসিন


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

হল না জেতা, পেল না ৩২ লাখ টাকা

২০১৯-১২-০৯ ১২:০১:৪৪ এএম

ভারতকে উড়িয়ে দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

২০১৯-১২-০৮ ১১:১৩:১৩ পিএম

বাংলাদেশের পদকের সেঞ্চুরি

২০১৯-১২-০৮ ১১:০৯:০২ পিএম

টি-টোয়েন্টির চূড়ায় কোহলি

২০১৯-১২-০৮ ১০:৪৯:৩৬ পিএম

‘গবেষণায় চিকিৎসকদের মনোযোগ কম’

২০১৯-১২-০৮ ১০:৪২:৫১ পিএম